• বুধবার   ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২৬ ১৪২৯

  • || ১৭ রজব ১৪৪৪

আজকের সাতক্ষীরা

যেভাবে সাজাবেন বড়দিনে ক্রিসমাস ট্রি

আজকের সাতক্ষীরা

প্রকাশিত: ২৫ ডিসেম্বর ২০২২  

আজ ক্রিসমাস, যীশুখ্রীষ্টের জন্মদিন। বড়দিনে ঘর সাজানোর ক্ষেত্রে ক্রিসমাস ট্রি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। অনেকে মনে করেন যে ক্রিসমাস ট্রি খুবই শুভ জিনিস। তাই বড়দিন উপলক্ষে বাড়িতে, শপিংমলে, পার্কে কিংবা রেস্টুরেন্টে ক্রিসমাস ট্রি বসানো হয়। এরপর ক্রিসমাস ট্রি সাজানো হয় নানা রঙের বাতি, ঘণ্টা, রঙিন পপস, মোমবাতি, পাখি, ফুল, ফল, স্বর্গদূত আর রঙবেরঙের কাগজে।

মূলত, ক্রিসমাস ট্রিকে সুখ ও সমৃদ্ধির প্রতীক হিসাবে ধরে নেয়া হয়। মনে করা হয়, চির সবুজ দেবদারু জাতীয় এই গাছ অশুভ শক্তির বিনাশ ঘটায়। ফলে এই গাছকে সুন্দর করে সাজালে ঘরে সমৃদ্ধি বাড়ে বলেও মনে করা হয়। ক্রিসমাস ট্রি সাজাতে গেলে কী কী জিনিস সঙ্গে রাখতে হবে তার তালিকা আগে দেখে নেয়া যাক।

কী কী উপকরণ লাগবে দেখে নেয়া যাক 
ক্রিসমাস ট্রি সাজাতে লাগিয়ে নিন চকলেট, বেল, খেলনা এবং স্টার, নানা রঙের বাতি, ঘণ্টা, রঙিন পপস, মোমবাতি, পাখি, ফুল, ফল, স্বর্গদূত আর রঙবেরঙের কাগজ। এগুলো কোথায় কীভাবে লাগাবেন, তা নিয়ে অনেকের সংশয় দেখা যায়। ক্রিসমাস ট্রির ওপরে একটি তারা বা স্বর্গদূত বসানো হয়। এই স্বর্গদূতটি বেথেলহেমে জন্ম নেয়া যিশুখ্রিস্টের প্রতীক। তাই ট্রির ওপরে থাকবে স্টার। 

এছাড়াও গাছ সাজানো হয়, লাল, সবুজ, রুপালি ও সোনালী রঙের কালারফুল কাগজে। ক্রিসমাস ট্রিতে বেলকে পথপ্রদর্শক হিসেবে ধরে নেয়া হয়। বিভিন্ন কালারফুল লাইট দিয়ে গাছকে সুন্দর করে আলোকিত করতে হবে। পুস্তকস্তবক রাখতে হবে গাছে। ক্যান্ডি ক্যানস দিয়ে মেষপালকদের প্রতীককে ব্যবহার করা হয়। কারণ মেষপালকরাই প্রথমে যিশুর জন্মস্থানে নিয়ে যান। এছাড়াও উপহারের প্রতীকও সেখানে রাখা হয়।

বাড়ি সাজানোর উপায়
বাড়িতে ক্রিসমাস ট্রি যখন সাজিয়ে ফেলেছেন, তখন সেখানে রাখুন আশপাশে বেশ কিছুটা আলো। বিভিন্ন ক্যান্ডেল, এলইডি দিয়ে বাড়ি সাজাতে পারেন। এছাড়াও সান্টাকে মনে রেখে বাড়ির ছোট সদস্যদের জন্য রাখুন মোজাতে ভরে উপহার।

আজকের সাতক্ষীরা
আজকের সাতক্ষীরা