• বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৬ ১৪৩০

  • || ১৮ শা'বান ১৪৪৫

আজকের সাতক্ষীরা

আরও ১০০ হাসপাতালে চালু হচ্ছে প্রাইভেট প্র্যাকটিস

আজকের সাতক্ষীরা

প্রকাশিত: ২ মে ২০২৩  

দেশের সরকারি হাসপাতালগুলোর সক্ষমতার সঠিক ব্যবহার ও জনগণের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিতে ইনস্টিটিউশনাল প্র্যাকটিস (প্রাইভেট প্র্যাকটিস) কার্যক্রম চালু করেছে সরকার। সরকারি হাসপাতালে প্রাইভেট রোগী দেখার বিশেষ এই সেবার পরিধি বাড়াতে আগামী সপ্তাহে আরও ১০০ হাসপাতালে বৈকালিক সেবা চালু হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক।
মঙ্গলবার (২ মে) সচিবালয়ে জাতীয় স্বাস্থ্য ও কল্যাণ দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য এই তথ্য জানান তিনি।
বৈকালিক ক্লিনিক্যাল প্র্যাকটিস করার সব ধরনের প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। আগামী এক সপ্তাহ থেকে সর্বোচ্চ ১০ দিনের মধ্যে আরও ১০০টি প্রতিষ্ঠানে বৈকালিক সেবা চালু করা যাবে।
স্বাস্থ্যখাতকে মনিটরিংয়ের আওতায় আনার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, আগে দেশের স্বাস্থ্য খাতে নিয়োজিত চিকিৎসক, নার্স ও সংশ্লিষ্টদের নিয়মতান্ত্রিকভাবে প্রশিক্ষণ দেওয়া হতো না। তাদের প্রশিক্ষণকে একটি নিয়মতান্ত্রিক পদ্ধতিতে নিয়ে আসতে কাজ শুরু হয়েছে। এছাড়া প্রতিবছর একটি কনফারেন্সের আয়োজন করা হবে। যে পদ্ধতিতে ডিসি ও পুলিশ সুপারের কনফারেন্স করা হয়, সেই একইভাবে চিকিৎসকদের নিয়েও প্রতিবছর কনফারেন্সের আয়োজন করা হবে।
মন্ত্রী বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, অধিদফতর ও সারাদেশে মাঠপর্যায়ে বিভিন্ন পরিচালকসহ প্রায় ৭০০ কর্মকর্তা রয়েছে। সবাইকে নিয়ে এই কনফারেন্সের আয়োজন করা হবে। ওই কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রীকেও আমন্ত্রণ জানানো হবে। আশা করি তিনি আমাদের এই সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।
চলতি মাসের ১১ তারিখে বাংলাদেশের ইউনিভার্সিটি হেলথ কনফারেন্স নামে একটি ইউনিভার্সাল হেলথ কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হবে। এতে নিউজিল্যান্ডের সাবেক প্রধানমন্ত্রীর যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে। স্বাস্থ্য খাতের দেশি-বিদেশি অনেক গুণীজনও এ কনফারেন্সে অংশ নেবেন বলেও জানিয়েছেন জাহিদ মালেক।
উল্লেখ্য, গত ৩০ মার্চ দেশের সরকারি হাসপাতালে রোগীদের বৈকালিক স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতকরণের অংশ হিসেবে প্রাথমিক অবস্থায় ঢাকা বিভাগের ১০ জেলা, চট্টগ্রাম বিভাগের আট জেলা, ময়মনসিংহ বিভাগের চার জেলা, খুলনা বিভাগের চার জেলা, রাজশাহী বিভাগের তিন জেলা, রংপুর বিভাগের পাঁচ জেলা, বরিশাল বিভাগের তিন জেলা ছাড়াও সিলেট ও বরিশাল বিভাগের পাঁচ জেলায় ইনস্টিটিউশনাল প্র্যাকটিস কার্যক্রম শুরু হয়।

আজকের সাতক্ষীরা
আজকের সাতক্ষীরা