• মঙ্গলবার ২১ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৬ ১৪৩১

  • || ১২ জ্বিলকদ ১৪৪৫

আজকের সাতক্ষীরা

অপহরণ মামলার ভিকটিম বললেন ‘তাকে কেউ অপহরণ করেনি

আজকের সাতক্ষীরা

প্রকাশিত: ২৯ এপ্রিল ২০২৩  

সাবেক স্বামীর করা মিথ্যা অপহরণ মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মামলার ভিকটিম ও সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার আনুলিয়া ইউনিয়নের মধ্যম একসরা গ্রামের আয়েশা খাতুন।

শনিবার (২৯ এপ্রিল) সকাল ১০টায় সাতক্ষীরা সাংবাদিক কেন্দ্রে সংবাদ সম্মেলন করে আয়েশা খাতুন বলেন, তিনি অপহরণ হননি। তার সাবেক স্বামী মিথ্যা অপহরণের নাটক সাজিয়ে প্রতিবেশী ও স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভপতি মোঃ দবির শিকারী, তার স্ত্রী মমতাজ খাতুন ও মেয়ে ফাতেমা খাতুনের নামে সাতক্ষীরা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মিথ্যা অপহরণ মামলা দায়ের করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে আয়েশা খাতুন বলেন, আমার বাড়ি আশাশুনি উপজেলার মধ্যম একরা গ্রামে। আমার তিনটি সন্তান রয়েছে। আমার সাবেক স্বামী মোঃ নজরুল ইসলাম ঢালী পারিবারিক কলহের জেরে আমাকে প্রায় সময় অমানুষিক নির্যাতন করত। নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে আমি চলতি বছরের ফেব্রæয়ারি মাসে স্বামীর বাড়ি ছেড়ে খুলনায় চলে যাই। বর্তমানে সেখানে একটি বাসা ভাড়া করে থাকি এবং অন্যের বাড়িতে বুয়ার কাজ করি।

তিনি আরও বলেন, আমি গত ৪ এপ্রিল নজরুল ঢালীকে কোর্টের মাধ্যমে তালাক দিয়েছি। আমি চলে আসার পর আমার সাবেক স্বামী নজরুল ইসলাম ঢালী বাদী হয়ে আমাকে অপহরণ ও পতিতালয়ে বিক্রির মিথ্যা অভিযোগ এনে আমাদের গ্রামের প্রতিবেশী স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভপতি মোঃ দবির শিকারী, তার স্ত্রী মমতাজ খাতুন ও মেয়ে ফাতেমা খাতুনের নামে সাতক্ষীরা নারী ও শিশু আদালতে একটি মিথ্যা অপহরণ মামলা দায়ের করেছে। মামলা নং: ১১৯/২৩)। তিমি মিথ্যা ও বানোয়াট অপহরণ মামলাটি প্রত্যাহারের দাবি জানান।

তিনি বলেন, আমি নিজেই আমার স্বামীর বাড়ি ত্যাগ করে ও তাকে তালাক দিয়ে বর্তমানে স্বেচ্ছায় খুলনাতে অবস্থান করছি। আমাকে কেউ অপহরণ করেননি। আমার সাবেক স্বামী ব্যক্তিগত শত্রæতার জের ধরে মোঃ দবির শিকারী ও তার পরিবারের সদস্যদের নামে এই মিথ্যা মামলাটি দায়ের করেছে। আমি তাদের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করার জন্য আবেদন করছি।

আজকের সাতক্ষীরা
আজকের সাতক্ষীরা