• শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৬ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

আজকের সাতক্ষীরা

সহকারী বন সংরক্ষকের জন্য সাত কেজির ভেটকি

আজকের সাতক্ষীরা

প্রকাশিত: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

পশ্চিম সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষকের জন্য সাত কেজি ওজনের ভেটকি মাছ নিয়ে গিয়েছিলেন এক ব্যক্তি। তবে রেঞ্জ কার্যালয়ের সীমানায় ঢোকার পর বনরক্ষীদের তৎপরতায় পরিস্থিতি ঘোলাটে বুঝতে পেরে দ্রুত রেঞ্জ এলাকা ত্যাগ করেন।

বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পশ্চিম সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জের বুড়িগোয়ালিনী রেঞ্জ কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। 

অভিযুক্ত ব্যক্তি অয়ন গাজী সুন্দরবনে মাছ শিকারের জড়িত বলে জানা গেছে। তিনি অয়ন কোম্পানির মালিক ও শ্যামনগর উপজেলার ডুমুরিয়া গ্রামের আব্দুল মাজিদ গাজীর ছেলে।

অভিযোগ উঠেছে, সুন্দরবনের অভয়ারণ্যে ঢুকে মাছ শিকারের সম্মতি আদায়ের চেষ্টা করছে স্থানীয় ফিশিং ট্রলারের মালিকরা। যার কৌশল হিসেবে আগের রাতে শিকার করা বড় আকৃতির ভেটকি মাছটি রেঞ্জে অবস্থানরত সহকারী বন সংরক্ষককে উপহার দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। 

মাছ নিয়ে যাওয়ার কথা স্বীকার করলেও অয়ন গাজী জানান, রেঞ্জ কর্মকর্তা নন, বরং একজন নিকটাত্মীয়কে দেওয়ার জন্য তিনি মাছটি নিয়ে গিয়েছিলেন।

যদিও সহকারী বন সংরক্ষক একেএম ইকবাল হোসাইন চৌধুরী জানান, রেঞ্জের আশপাশে মাছ নিয়ে একজনকে স্থানীয়রা ঘোরাঘুরি করতে দেখে। খবর পেয়ে তাকে আটকাতে অফিসের লোকজনকে নির্দেশ দেওয়ার পর সে ঘটনাস্থল ছেড়ে যায়। তিনি আরও জানান, অভয়ারণ্য দূরের কথা, এক স্টেশনের অনুমতি নিয়ে ভিন্ন এলাকায় কাউকে মাছ ধরতে দেওয়া হবে না। 

এদিকে নির্ভরযোগ্য একাধিক সূত্র জানায় সহকারী বন সংরক্ষককে মাছ দিতে ব্যর্থ হয়ে বুড়িগোয়ালিনী স্টেশন কর্মকর্তা হাবিবুল ইসলামের বাসায় ওই মাছ পৌঁছে দেন অয়ন। 

এ বিষয়ে কথা বলার জন্য হাবিবুল ইসলামের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি। পরে খুদে বার্তা পাঠালেও সাড়া মেলেনি।

আজকের সাতক্ষীরা
আজকের সাতক্ষীরা