• রোববার   ০৩ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৯ ১৪২৯

  • || ০৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

আজকের সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরার শিবপুরে কমলা চাষ, আশা জাগিয়েছে কৃষকদের মাঝে

আজকের সাতক্ষীরা

প্রকাশিত: ১৩ জুন ২০২২  

 সাতক্ষীরা সদর উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের শিয়ালডাঙ্গায় কমলা লেবুর সুভাষ ছড়িয়ে জেলা ব্যাপী সেই সুবাস ছড়িয়ে পড়েছে। আলোয় আলোকিত হচ্ছে, কমলা চাষের আলোর বিচ্ছুরন দিক হতে দিকে ছড়িয়ে পড়ছে। পাহাড়ীফল আর বৈরী আবহাওয়ার অনুকুলে কমলা চাষ বিশেষ ভাবে পরিচিতি পেলেও সাতক্ষীরা কৃষি স¤প্রসারন অধিদপ্তরের সহায়তায় ও সার্বিক ব্যবস্থাপনায় শিয়ালডাঙ্গা গ্রামের আলহাজ্ব আঃ আলীর পুত্র আব্দুর রহীম পাঁচবিঘা জমিতে বারী-১ মালটা ও দার্জিলিং কমলা চাষে বিশেষ আয়োজন করেছে।

পাঁচবিঘা জমির তিন বিঘাতে মালটা ও দুই বিঘাতে দার্জিলিং কমলা চাষ যেন দৃষ্টিনন্দন, মনজুড়ানো এক অনন্য অসাধারন সৃষ্টি। কমলাচাষী আব্দুর রহীম জানান তিন বছর পূর্বে তিনি চাষ শুরু করেন অর্থাৎ মালটা ও কমলা চারা রোপন করেন, কৃষি দপ্তরের পরামর্শে গাছের পরিচর্যা সহ সার্বিক ব্যবস্থায় থাকি, দ্বিতীয় বছরে প্রথম সাফল্যে মুখ দেখি, দুই একটি গাছে মালটা ধরে পরবর্তি বছর অর্থাৎ তিন বছরের ব্যবধানে প্রতিটি গাছে ফল ধরে, বোটায় বোটায়, যেন পাতায় পাতায় ফল আর ফল, গাছ যেন নুয়ে পড়ার উপক্রম, থোকা থোকা ফল, যে দৃশ্য দেখতে দুরদুরান্ত হতে আসে জনসাধারন, পরিস্থিতি এমন বাগানটি প্রদর্শন বাগানের রুপ ধারন ও পরিচিতি পেয়েছে। মালটা চাষে সত্যিকার অর্থে বিপ্লব এনেছেন আব্দুর রহীম, একাগ্রতা, আত্মবিশ্বাস, পরিশ্রম যে কোন অসাধ্যকে সাধ্যকরা যায় তার অন্যতম উদাহরন শিয়ালডাঙ্গায় মালটা ও কমলার চাষ। দেশের মালটা ও কমলার চাহিদা মিটাতে প্রতি বছর বিপুল পরিমান বৈদেশিক মুদ্রা ব্যয়ে আমদানী করতে হয়। সাতক্ষীরার শিয়ালডাঙ্গা হতে পারে মালটা ও কমলা রপ্তানীর ক্ষেত্র।

একই সাথে স্থানীয় অর্থনীতিতেও রাখতে পারে বিশেষ অবদান, পাঁচবিঘা জমিতে কেবল মালিক পক্ষের উপার্জনের মাধ্যম তা নয় কর্মরত শ্রমিক, সুফলভোগী, অংশিজন সকলেই লাভবান হতে পারে। চাষী আব্দুর রহমান বলেন সরকারি অনুদান পেলে চাষাবাদের ক্ষেত্র আরও বর্ধিত করা সম্ভব, তিনি বলেন আশানুরুপ উৎপাদন হলে বিঘা প্রতি ৫/৬ লক্ষটাকা ফল বিক্রি করা সম্ভব। শিয়ালডাঙ্গার আঃ রহিমের কমলা বাগান অর্থ উপার্জনের যে হাতছানি দিচ্ছে তা সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ুক, বেকারের হাত কর্মির হাতে পরিনত হোক।

আজকের সাতক্ষীরা
আজকের সাতক্ষীরা