• রোববার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৮

  • || ২৯ রবিউস সানি ১৪৪৩

আজকের সাতক্ষীরা

তৃতীয় ধাপে কালিগঞ্জ ও দেবহাটার ১৭ ইউপিতে চেয়ারম্যান প্রার্থী ৮২

আজকের সাতক্ষীরা

প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০২১  

তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আগামী ২৮ নভেম্বর সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ ও দেবহাটা উপজেলার ১৭টি ইউনিয়নে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এই দু’টি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৮২ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৯৯ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৬২০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। গত ১২ নভেম্বর প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পরপরই প্রার্থীরা ভোটযুদ্ধে অবতীর্ণ হয়েছেন। নির্বাচনী প্রচার প্রচারণায় এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থীরা।

সংশ্লিষ্ট নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, কালিগঞ্জ উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৬৪ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৪১ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৬৪৮ জন এবং দেবহাটা উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ১৮ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৫৮ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ১৭৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
এই দু’টি উপজেলার ১৭ টি ইউনিয়নে মোট ভোটার ৩ লাখ ৩৬ হাজার ৮৯১ জন। এর মধ্যে কালিগঞ্জ উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে মোট ভোটার ২ লাখ ৩১ হাজার ৮৬৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ১৭ হাজার ৯৮০ ও নারী ভোটার ১ লাখ ১৩ হাজার ৮৮৪ জন। এছাড়া দেবহাটা উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে মোট ভোটার ১ লাখ ৫ হাজার ৩৭ জন । এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫২ হাজার ৯০১ জন এবং নারী ভোটার ৫২ হাজার ১৩৬ জন। দুই উপজেলায় মোট ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ১৬১ টি ও ভোট কক্ষের সংখ্যা ৮৫৩। এর কালিগঞ্জ উপজেলার ১১০টি কেন্দ্রের ৫৮৬ কক্ষে ও দেবহাটা উপজেলার ৫১টি কেন্দ্রের ২৬৭টি কক্ষে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।
নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, কালিগঞ্জ উপজেলার ১২টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন, ১ নং কৃষ্ণনগর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী শ্যামলী রানী অধিকারী (নৌকা), জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য সাফিয়া পারভিন (লাঙ্গল), বিএনপি’র স্বতন্ত্র প্রার্থী রবি উল্লাহ বাহার (ঘোড়া), স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুর রহমান মোল্লা (আনারস), জামায়াতের স্বতন্ত্র প্রার্থী রওশান আলি কাগুচী (মোটরসাইকেল), খেলাফত আন্দোলনের শাহজাহান কবির (হাতপাখা), স্বতন্ত্র প্রার্থী নজরুল ইসলাম (চশমা) এবং আসানুর রহমান (অটোরিকশা)।
২ নং বিষ্ণুপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী শেখ রিয়াজ উদ্দিন (নৌকা), বিএনপি’র স্বতন্ত্র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম (আনারস),
৩ নং চাম্পাফুল ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী মোজাম্মেল হক গাইন (নৌকা), বিএনপি’র স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল লতিফ মোড়ল (আনারস) এবং আব্দুল হান্নান গাইন (মোটরসাইকেল)।
৪ নং দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের গোবিন্দ মন্ডল (নৌকা), বিদ্রোহী প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান প্রশান্ত কুমার সরকার (ঘোড়া), বিএনপি’র স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান দিদারুল ইসলাম (চশমা), জাতীয় পার্টির স্বতন্ত্র প্রার্থী জুলফিকার আলী সাপুই (মোটরসাইকেল) এবং খেলাফত আন্দোলনের হাফেজ শফিকুল ইসলাম (হাতপাখা)।
৫ নং কুশুলিয়া ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থী আবুল কাশেম মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ (নৌকা), বর্তমান চেয়ারম্যান বিএনপি’র স্বতন্ত্র প্রার্থী শেখ এবাদুল ইসলাম (ঘোড়া), সাবেক চেয়ারম্যান জাতীয় পার্টির স্বতন্ত্র প্রার্থী লতিফুর রহমান খাঁন বাবলু (মোটরসাইকেল), স্বতন্ত্র প্রার্থী আসাফউদ্দৌলা খাঁন (আনারস), রেজাউল করিম (চশমা) এবং খেলাফত আন্দোলনের তাইজুল ইসলাম (হাতপাখা)।
৬ নং নলতা ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী আবুল হোসেন পাড় (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান পাড় (চশমা), স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান এসএম আসাদুজ্জামান সেলিম (মোটর সাইকেল), স্বতন্ত্র প্রার্থী আজমীর উজ্জামান (আনারস), সাইদুর রহমান (ঘোড়া), শাহিনুর রহমান (অটোরিকশা) এবং খেলাফত আন্দোলনের শাহাদাত হোসেন (হাতপাখা)। 
৭ নং তারালী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী থানা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক চেয়ারম্যান এনামুল হোসেন ছোট (নৌকা), সাবেক চেয়ারম্যান জামায়াতের স্বতন্ত্র প্রার্থী মাওলানা আব্দুল গফুর (মোটর সাইকেল) এবং খিলাফত আন্দোলনের মহব্বত গাইন (হাতপাখা)।
৮ নং ভাড়াশিমলা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী আবুল হোসেন (নৌকা), বিদ্রোহী প্রার্থী থানা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হাসান নাঈম (আনারস), স্বতন্ত্র প্রার্থী আফসার আলী (মোটর সাইকেল), আব্দুল কুদ্দুস গাজী সাহেব আলী ওরফে সাহেব আলী (ঘোড়া) এবং খিলাফত আন্দোলনের শওকত বিশ্বাস (হাতপাখা)।
৯ নং মথুরেশপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী ফিরোজ আহমেদ (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান গাইন (ঢোল), সাবেক চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল অহেদ মারুফ (আনারস) বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাকিম (রজনীগন্ধা), ওয়াকার্স পার্টির তরিকুল ইসলাম (চাকা), বিএনপির স্বতন্ত্র প্রার্থী নাজমুল ইসলাম (টেবিল ফ্যান), আলাউদ্দিন সোহেল (ঘোড়া), আলোচিত গরিবের প্রার্থী ভ্যান চালক শেখ মোজাফফর হোসেন মোজাম (চশমা), রমেশ চন্দ্র বিশ্বাস (অটোরিকশা), শেখ আকুঞ্জি বাবলুর রহমান (টেলিফোন) এবং খেলাফত আন্দোলনের শাহজাহান সিরাজ খান (হাতপাখা)।
১০ নং ধলবাড়িয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী সজল মুখার্জি (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী চেয়ারম্যান গাজী শওকত হোসেন (ঘোড়া), আনোয়ার সাদাত বাদশা (চশমা), শেখ ফিরোজ আলম (মোটরসাইকেল), বিএনপি’র স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল করিম (আনারস)।
১১ নং রতনপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী এম আলী আল রাজী (নৌকা), বিএনপি’র স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহেদ (আনারস) এবং এস এম আনোয়ার হোসেন (ঘোড়া)।
১২ নং মৌতলা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী রুহুল আমিন সরদার (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক ইউপি সদস্য ফেরদৌস মোড়ল (ঘোড়া), জাতীয় পার্টির খোরশেদ আলম (চশমা), বিএনপি’র স্বতন্ত্র প্রার্থী আলমগীর হোসেন (মোটরসাইকেল) এবং খেলাফত আন্দোলনের শেখ ওবায়দুর রহমান (হাতপাখা)।
এছাড়া উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৪১ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ৪৪৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
কালিগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন অফিসার অনুজ কুমার জানান, আগামী ২৮ নভেম্বর সুষ্ঠ, শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে এ সকল ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন সম্পন্ন করতে প্রশাসন ও নির্বাচন কমিশনের পক্ষ সার্বিক প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। আমরা আশাবাদি ভোটারা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করে নিজেদের পছেন্দের জনপ্রতিনিধিকে বাছাই করে নিবে।
এদিকে দেবহাটা উপজেলার কুলিয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আ’লীগের প্রার্থী আসাদুল ইসলাম (নৌকা), বিদ্রোহী জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি আছাদুল হক (ঘোড়া) ও বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক প্রাণনাথ দাশ (আনারস) প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। পারুলিয়া ইউনিয়নের আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী সাইফুল ইসলাম (নৌকা), স্বতন্ত্র উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক গোলাম ফারুক বাবু (আনারস), দেবহাটা সদর ইউনিয়নে আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী আলী মোর্তজা মোঃ আনোয়ারুল হক (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আবু বকর গাজী (আনারস), সাবেক চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম (মোটরসাইকেল), বিএনপি নেতা ও সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল মতিন বকুল (চশমা), দীন ইসলাম (অটোরিকশা) ও রানা (ঘোড়া), সখিপুর ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান ও আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী শেখ ফারুক হোসেন রতন (নৌকা), স্বতন্ত্র সাইফুল ইসলাম (মোটর সাইকেল), আব্দুল আজিজ (ঘোড়া) এবং আবু হাসান সাঈদ (আনারস), নওয়াপাড়া ইউনিয়নের আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী আলমগীর হোসেন সাহেব আলী (নৌকা), বিএনপি নেতা ও সাবেক চেয়ারম্যান রেজাউল করিম (আনারস), রাজিব হোসেন রাজু (চশমা) প্রতীক প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
এছাড়া উপজেলার পাঁচ ইউনিয়নে সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৫৮ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ১৭৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
দেবহাটা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মনোরঞ্জন বিশ্বাস বলেন, প্রার্থীরা মনোরম পরিবেশে শান্তিপূর্নভাবে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে। দেবহাটাবাসীর জন্য একটি অবাদ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন করার জন্য যা যা করার দরকার আমরা তাই করবো। আচরণবিধি মেনে প্রচার প্রচারণা চালানোর জন্য প্রার্থীদের প্রতি আহবান জাননো হয়েছে। আচরণবিধি লক্ষ্য করার জন্য ইতিমধ্যে একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেয়া হয়েছে।
দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ ওবায়দুল্লাহ বলেন, এই নির্বাচনকে সামনে রেখে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা যথেষ্ট তৎপর রয়েছে। এখনো পর্যন্ত ৫টি ইউনিয়নে আইন শৃঙ্খলা স্বাভাবিক রয়েছে। এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কেউ যদি বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করে তাহলে তাকে কঠোর হস্তে দমন করা হবে বলে জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

আজকের সাতক্ষীরা
আজকের সাতক্ষীরা