• রোববার ১৪ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩০ ১৪৩১

  • || ০৬ মুহররম ১৪৪৬

আজকের সাতক্ষীরা

যেখানে পোস্টিং সেখানেই চাকরি করতে হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আজকের সাতক্ষীরা

প্রকাশিত: ৭ জুলাই ২০২৪  

চিকিৎসকদের উদ্দেশে স্বাস্থ্যমন্ত্রী সামন্ত লাল সেন বলেছেন, ডাক্তারদের গ্রাম-গঞ্জে পোস্টিং দিলে তদবির শুরু হয়ে যায়। এমন মন মানসিকতা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। পোস্টিং যেখানে করা হয়, সেখানে তাকে চাকরি করতে হবে। কেউ যদি যেতে না চায়, তাকে বলবেন চাকরি ছেড়ে দিতে। গতকাল চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের বিভিন্ন ওয়ার্ড পরিদর্শন শেষে চিকিৎসক ও কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।

সংসদ সদস্যদের নিজ এলাকার হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়ার পরামর্শ দিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী বিদেশ যান না, তিনি দেশেই চিকিৎসা করান। সংসদ সদস্যরা নিজ এলাকার হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা করালে দেশের চিকিৎসাব্যবস্থার প্রতি মানুষের আস্থা ফিরে আসবে। চিকিৎসার জন্য বিদেশ যাওয়ার কথা চিন্তা করবে না জনগণ।

দেশের বিভিন্ন হাসপাতাল পরিদর্শন প্রসঙ্গে ডা. সামন্ত লাল সেন বলেন, আমি ঠিক করেছি, ঢাকায় দুদিনের বেশি থাকব না। আমি পুরো দেশ ঘুরব। বাংলাদেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠী যদি ভালো স্বাস্থ্যসেবা পায়, তা হলে শহরে ভিড় হবে না। গতকাল (শুক্রবার) চট্টগ্রামে এসে একটা হাসপাতালে গিয়েছিলাম। সেখানে গিয়ে মন খারাপ হয়ে গেছে। একটা হাসপাতালে যদি ইমার্জেন্সি ডাক্তার না থাকে, অক্সিজেন সিলিন্ডার খালি থাকে তাহলে

তারা রোগীকে কী সেবা দেবে? চমেক হাসপাতালে এমআরআই মেশিন নষ্ট, সিটিস্ক্যান নষ্ট- এটি শুনতেও আমার কাছে খারাপ লাগে। এগুলো জরুরি ভিত্তিতে ঠিক করার জন্য যা যা করা দরকার, আমি করব।

মতবিনিময়সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (হাসপাতাল) ডা. আবু হোসেন মো. মঈনুল আহসান, চমেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ তসলিম উদ্দিন ও চট্টগ্রাম জেলার সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াস চৌধুরী প্রমুখ।

এর আগে চট্টগ্রামে দুদিনের সফরে এসে গত শুক্রবার কয়েকটি বেসরকারি হাসপাতালে ঝটিকা পরিদর্শন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী সামন্ত লাল সেন। এ সময় হাসপাতালগুলোর সেবা নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি। গতকাল চমেক হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী যান হাটহাজারী উপজেলার জোবরা গ্রামে একটি কমিউনিটি ক্লিনিকে। সেখানে তিনি নিজের ডায়াবেটিস ও রক্তচাপ পরীক্ষা করেন। এর পর তিনি পরিদর্শন করেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।

আজকের সাতক্ষীরা
আজকের সাতক্ষীরা