• শনিবার   ১৫ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ৩১ ১৪২৭

  • || ২৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

আজকের সাতক্ষীরা
৭৫

সেনাবাহিনী বিশ্বস্ততার প্রতীক হয়ে আছে : সেনাপ্রধান

আজকের সাতক্ষীরা

প্রকাশিত: ২৩ জুলাই ২০২০  

সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেছেন, জন্মলগ্ন থেকেই বাংলাদেশ সেনাবাহিনী দেশ গঠনের কাজে নির্ভরতা, বিশ্বস্ততা এবং সফলতার প্রতীক হয়ে আছে এবং ভবিষ্যতেও এই ভাবমূর্তি অক্ষুণ্ন থাকবে ইনশাল্লাহ।

বৃহ্স্পতিবার (২৩ জুলাই) সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কক্সবাজারে খুরুশকুল বিশেষ আশ্রয়ণ প্রকল্প উদ্বোধনের সময় একথা বলেন তিনি।

সেনাপ্রধান আরও বলেন, জাতির পিতার সোনার বাংলা আজ একটি বাস্তবতা আর এই স্বপ্নের বাস্তবায়ন হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বলিষ্ঠ নেতৃত্বে।

তিনি বলেন, দেশের প্রতিটি নাগরিকের বাসস্থান পাওয়ার লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী পরিকল্পনার একটি সফল বাস্তবায়ন হতে যাচ্ছে খুরুশকুল বিশেষ আশ্রয়ন প্রকল্প। কক্সবাজার জেলার জলবায়ু উদ্বাস্তু পরিবারকে বাসস্থান দেয়ার লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রত্যক্ষ দিকনির্দেশনা ও পৃষ্ঠপোষকতায় এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে সেনাবাহিনী। উক্ত প্রকল্পের আওতায় ৪৮৪৮টি জলবায়ু উদ্বাস্তু পরিবারের জন্য সর্বমোট ১৩৯টি বহুতল ভবন, ২০ কিলোমিটার আভ্যন্তরীণ সংযোগ সড়ক সৃষ্টি, ৩৬ কিলোমিটার ট্রেনলাইন, পানি সরবরাহের জন্য ৩৮টি পাম্প, পানি শোধনাগার এবং স্কুল নির্মাণ করা হবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ২০১৭ সালের মে মাসের মাঝামাঝি এই প্রকল্প দায়িত্ব নেয়। এরই ধারাবাহিকতায় প্রথম পর্যায়ে ২০১৮ সালের পহেলা জানুয়ারি দশটি ভবন এবং দ্বিতীয় পর্যায়ে ২০১৮ সালের পহেলা জুলাই আরও দশটি ভবনের নির্মাণ কাজ শুরু হয়। বর্তমানে ২০টি ভবনের নির্মাণ কাজসহ ৫০ মিটার সংযোগ সড়ক, দুটি পুকুর খনন এবং আভ্যন্তরীণ ড্রেনেজ নির্মাণকাজ সম্পন্ন হয়েছে। এছাড়াও জলবায়ু উদ্বাস্তু পরিবারের ছেলেমেয়েদের পড়াশোনার জন্য একটি স্কুলের নির্মাণকাজ ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে। উক্ত প্রকল্পের সৌন্দর্যবর্ধন ও জলবায়ু রক্ষার নিমিত্তে প্রকল্প এলাকায় ব্যাপক বৃক্ষরোপণ করা হয়েছে এবং আরও করা হবে। এ ধরনের প্রকল্প বাংলাদেশের প্রথম। এটি বৃহত্তর কয়টি বিভাগে বাস্তবায়িত হচ্ছে। এ প্রকল্পটি বিশ্বে জলবায়ু প্রকল্প হিসেবে দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব যেকোনো সময় নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে পালন করে থাকে। এই ঐতিহ্যের ধারাবাহিকতায় আশ্রয়ণ প্রকল্প দায়িত্বশীলতার সঙ্গে সম্পন্ন করার জন্য সেনাসদস্যরা নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন। এই প্রকল্পটি দ্রুত শেষ করার পাশাপাশি মানসম্পন্ন রক্ষণাবেক্ষণের মাধ্যমে প্রকল্প এলাকার সৌন্দর্য বজায় রাখতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

সেনাবাহিনীকে এই বিশেষ প্রকল্পের দায়িত্ব দেয়ার জন্য প্রকল্প বাস্তবায়নে নিয়োজিত সকল সদস্য ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান তিনি।

আজকের সাতক্ষীরা
আজকের সাতক্ষীরা
জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর